Breaking News
Home > রেসিপি > সুস্থ থাকতে চাইলে চা- কফি নয়, ঘুম থেকে উঠে খান এই ৫টি খাবার

সুস্থ থাকতে চাইলে চা- কফি নয়, ঘুম থেকে উঠে খান এই ৫টি খাবার

সকালবেলা ঘুম থেকে ওঠার পরে সবার আগে কী খান আপনি? চা কিংবা কফি, তাই তো? কিন্তু তার পরে সারাদিন ক্লান্তি বোধ করেন, ঘুম পায় অসময়ে, কলেজের ক্লাসে বা অফিসের মিটিং-এ মন বসে না।

সকালবেলা ঘুম থেকে ওঠার পরে সবার আগে কী খান আপনি? চা কিংবা কফি, তাই তো? কিন্তু তার পরে সারাদিন ক্লান্তি বোধ করেন, ঘুম পায় অসময়ে, কলেজের ক্লাসে বা অফিসের মিটিং-এ মন বসে না। এ থেকে মুক্তির উপায় কী? আমেরিকার ন্যাশনাল স্লিপ ফাউন্ডেশন-এর একটি গবেষণাপত্র জানাচ্ছে, সকালে কী খাচ্ছেন, তার উপর অনেকখানি নির্ভর করে সারা দিনটা আপনার কেমন যাবে। সকালে কোন ধরনের খাবার খাওয়া উচিৎ, সেই পরামর্শও দিচ্ছে সেই গবেষণাপত্র। এখানে রইল এমন ৫টি খাবারের কথা যেগুলি খেলে সারাদিন থাকতে পারবেন তরতাজা। পারলে আপনার ব্রেকফাস্টে এই ৫টি খাবারই রাখুন, কিংবা পছন্দমতো বেছে নিন এর কয়েকটি। আর হ্যাঁ, এগুলি খাওয়ার অর্থ কিন্তু এই নয় যে, চিরপ্রিয় চা বা কফি খাওয়া বন্ধ করতে হবে। চা, কফি খান। তার সঙ্গে রাখুন এই ৫টি খাবারও—

১. আপেল:

প্রবাদ রয়েছে, রোজ একটি করে আপেল খেলে নাকি আর ডাক্তারের চৌকাঠ মাড়াতে হয় না। কথাটা নেহাৎ ভুল নয়। প্রতিটি আপেলে মোটামুটি ১৩ গ্রাম করে প্রাকৃতিক শর্করা থাকে। এই শর্করা কোনও কাজে মনোযোগ দিতে সাহায্য করে। ডাক্তাররা বলছেন, সকালে ঘুম থেকে উঠেই যদি কোনও কাজে মনোযোগ দিতে হয় তাহলে ঘুম থেকে ওঠার পরেই একটা আপেল খাওয়া উচিৎ।

২. ডিম:

ডিমের উপকারিতা কি নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে? ওমেগা-থ্রি ফ্যাট ও প্রোটিনে পরিপূর্ণ ডিম আপনাকে সারাদিনের উপযোগী এনার্জি সরবরাহ করে। কাজেই ব্রেকফাস্টে অবশ্যই ডিম খান একটি— সিদ্ধ, ওমলেট, পোচ যেভাবে পছন্দ।

৩. মৌসাম্বি:

মৌসাম্বি এমন একটি ফল যাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে। সকালবেলাই যদি ভিটামিন সি প্রবেশ করে আপনার শরীরে তাহলে তা একদিকে যেমন আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করে, তেমনই বাড়ায় আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। কাজেই ঘুম থেকে ওঠার পরে খেয়ে নিন একটি মৌসাম্বি লেবু।

৪. মধু:মধুর অঢেল উপকারিতার কথা ইতিমধ্যেই জেনে ফেলেছেন আপনারা। মধুও আপেলের মতোই প্রাকৃতিক শর্করার ভাণ্ডার। কাজেই সকালেই যদি কয়েক চামচ মধু খেয়ে নিতে পারেন, সারাদিনই কর্মচঞ্চল থাকতে পারবেন।

৫. ওটমিল:

ওট জিনিসটা এখনও বাঙালিদের খাদ্যতালিকায় তেমনভাবে জায়গা করে নিতে পারেনি। কিন্তু এটি কিন্তু অত্যন্ত উপকারী একটি খাবার। এই খাবার খেলে শরীরের মেটাবলিজম বৃদ্ধি পায়। ফলে ক্লান্তি আসে না। তাছাড়া ওট প্রচুর পরিমাণে ফাইবার জোগান দেয় শরীরে। এটি খেলে পেটও ভর্তি থাকে অনেকক্ষণ।

Check Also

বাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডার থাকলে এই ১০টি ভুল কখনই করবেন না

সাধারণ কিছু নিয়ম, যা জানা না থাকলে বড় বিপদে পড়তে পারেন আপনি অথবা আপনার প্রিয়জন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.