Breaking News
Home / বিউটি টিপস / দাঁতে নয়, এক দিন মুখে ব্রাশ ঘষলেন এই তরুণী। অবিশ্বাস্য উপকার পেলেন তাতেই

দাঁতে নয়, এক দিন মুখে ব্রাশ ঘষলেন এই তরুণী। অবিশ্বাস্য উপকার পেলেন তাতেই

কৌশলটিকে কার্যকর করার জন্য লাগবে একটি টুথব্রাশ এবং টুথপেস্ট। শুনে মনে হতে পারে, দাঁত মাজার আয়োজন চলছে। আদপে কিন্তু তা নয়।

লরা জোনস লস এঞ্জেলসের নামজাদা রূপ বিশেষজ্ঞ। কাস্টমারদের ত্বক-সংক্রান্ত নানা সমস্যা সমাধানের পাশাপাশি নিজেও যথাসম্ভব চেষ্টা করেন নিজেকে সুন্দর করে তোলার। বহু দিন ধরেই ব্ল্যাকহেডস-এর সমস্যা বিব্রত করছিল লরাকে। নাকের উপর, গালে কিংবা পিঠে বেড়ে ওঠা এই ছোট ছোট কালো কালো দানার মতো জিনিসটি আদপে সকলেরই সমস্যা। কিন্তু বিউটিপার্লারে না গেলে এর হাত থেকে মেলে না নিষ্কৃতি। লরা তাই খুঁজে পেতে চাইছিলেন এমন কোনও উপায়, যার সাহায্যে অল্প সময়ে বাড়িতেই তুলে ফেলা যায় ব্ল্যাকহেডস। একটু এক্সপেরিমেন্ট করতেই তিনি পেয়ে যান এমন একটি কৌশলের সন্ধান যার সাহায্যে বাড়িতে কয়েক মিনিটের মধ্যেই মুক্তি মিলবে ব্ল্যাকহেডস থেকে। সম্প্রতি তাঁর আবিষ্কৃত সেই অভিনব কৌশলের কথা তিনি লিখেছেন, ‘বিউটি অ্যান্ড হেলথ কেয়ার’ নামের ম্যাগাজিনে। আসুন, জেনে নেওয়া যাক ব্ল্যাক হেডস থেকে মুক্তির সেই সহজ উপায়টি।

কৌশলটিকে কার্যকর করার জন্য লাগবে একটি টুথব্রাশ এবং টুথপেস্ট। শুনে মনে হতে পারে, দাঁত মাজার আয়োজন চলছে। আদপে তা নয়, বরং দাঁত মাজার এই সমস্ত উপকরণই আপনাকে মুক্তি দেবে ব্ল্যাকহেডস-এর হাত থেকে।জেনে নিন, কী করতে হবে। প্রথমে পরিষ্কার জলে মু‌খটা ধুয়ে নিন। তার পর ব্রাশটা জলে ভিজিয়ে সেই ব্রাশের সাহায্যে টুথপেস্ট লাগিয়ে দিন মুখের ব্ল্যাকহেডস আক্রান্ত অংশে। এ বার আস্তে আস্তে খুব অল্প চাপ দিয়ে টুথপেস্ট লাগানো অংশে ব্রাশটা বোলান। কয়েক মিনিট এমনটা করার পরে মুখ ধুয়ে নিন। দেখবেন, ব্ল্যাকহেডস উধাও হয়ে গিয়েছে।

কী ভাবে ব্ল্যাকহেডস দূর করতে সক্ষম হতে পারে টুথপেস্ট? লরার ব্যাখ্যা, টুথপেস্টে হাইড্রোজেন প্যারাক্সাইড, উইচ হ্যাজেল, বেকিং সোডা এবং অ্যালকোহলের মতো উপাদান থাকে। এই সমস্ত উপাদান ব্ল্যাকহেডস দূর করতে সক্ষম।

লরা জানিয়েছেন, বর্তমানে নিজের কাস্টমারদেরও ব্ল্যাকহেডস তোলার জন্য টুথব্রাশ ও টুথপেস্টের টোটকাই বাতলে দিচ্ছেন তিনি। এতে খুশি তাঁর কাস্টমাররাও।

আরও পড়ুনঃ

Loading...

Check Also

স্থায়ীভাবে ঝটপট ফর্সা ও উজ্জ্বল ত্বক পাওয়ার ঘরোয়া উপায়

বর্তমান যুগে কেউ আর কাল থাকতে চান না। সবাই চায় নিজেকে একটু ফুটিয়ে তুলতে। আর …

error: Content is protected !!